শিমের মাছি পোকা- লিগিউম ফসলের এই পোকা শনাক্ত, প্রতিরোধ ও দমন পদ্ধতি

প্রাপ্তবয়স্ক শিমের মাছি পোকা যা সম্প্রতি কেনিয়ায় ফসল ধ্বংস করছে

বায়োপ্রোটেকশন পোর্টালে আমাদের প্রতিক্রিয়া ব্যবস্থার মাধ্যমে, সিএবিআই (CABI) সম্প্রতি আবিষ্কার করেছে যে কেনিয়ার চাষীরা শিমের মাছি পোকা (Ophiomyia spp) নিয়ে সমস্যায় পড়েছেন। আমরা কীটপতঙ্গের বিষয়ে তথ্যগুলি নিবন্ধিত করেছি যা এই পোকাকে শনাক্ত করতে সহায়তা করে, এই পোকাকে ক্ষতিকর বালাই হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে, এবং ক্ষতিকর বালাই এর পর্যায়ে গেলে তা কার্যকরভাবে দমন করা যায় ।

শিমের মাছি পোকাটি বিশ্বব্যাপী পাওয়া যেতে পারে এবং তাই এই নিবন্ধের মধ্যে থাকা তথ্যগুলি কেবল কেনিয়ায় নয়, এই কীটপতঙ্গ দ্বারা আক্রান্ত অন্যান্য দেশগুলিতেও ফসল উত্পাদনকারীদের জন্য দরকারী।

আপনি কীভাবে শিমের মাছি পোকা শনাক্ত করবেন?

সাধারণত শিমের মাছি পোকা শিম স্টেম ম্যাগোট নামে পরিচিত, এই পোকার বৈজ্ঞানিক নাম Ophiomyia spp. সহ O. Phaseoli, O. spencerella এবং O. centrosematis.

শিমের মাছি পোকা একটি ছোট চকচকে, ধাতব নীলাভ-কালো রঙের মাছি, প্রায় ২ মিলি মিটার।লম্বা ও স্বচ্ছ ডানা। লার্ভা বা কীড়া হলুদাভ-সাদা রঙের এবং দৈর্ঘ্যে ৩ মিলি মিটার। পিউপা বা পুত্তলী ব্যারেল আকৃতির এবং লম্বায় ২-৩ মিলি মিটার লম্বা হয়। এরা সাধারনত প্রাথমিকভাবে গাঢ় প্রান্তের সাথে হলুদ রঙের হয়, তবে পরবর্তীতে গাঢ় বাদামী (O. phaseoli) বা চকচকে কালো (O. spencerella) বা লাল-কমলা (O. centrosematis) হয়।

শিমের মাছি পোকা কোন কোন উদ্ভিদ আক্রমণ করে?

এই ছোট, নীলাভ-কালো রঙের মাছিটির লার্ভা সাধারন শিম (Phaseolus vulgaris)

সহ অন্যান্য লিগুমিনাস উদ্ভিদের কাণ্ড এবং পাতায় আক্রমণ করে। O. phaseoli এই গোষ্ঠীর মধ্যে সর্বাধিক ধ্বংসাত্মক, প্রচলিত শিম (Phaseolus vulgaris), সয়াবিন (Glycine max) এবং মটর (Vigna unguiculate) সহ বিস্তৃত শ্রেণির লিগউম ফসলকে আক্রমণ করে। O. spencerella সাধারণ শিম (P. vulgaris) ফসলের পাশাপাশি রাইস শিম (Vigna umbellate), লিমা বিন (Phaseolus lunataus) এবং অন্যান্য প্রজাতীর ফসলকে ও আক্রমণ করে।

শিমের মাছি পোকার পিউপা বা পুত্তলী © CABI

শিমের মাছি পোকা কী ক্ষতি করে?

প্রাথমিকভাবে পূর্ণাঙ্গ পোকার খাওয়া এবং ডিম্বস্ফোটন (ডিম পাড়া) এর ফলে পাতার পৃষ্ঠে ফ্যাকাসে হলুদ দাগ দেখা যায়। অতিরিক্ত আক্রমনের ফলে পাতা ঝরে যেতে পারে।

ডিম ফুটে লার্ভা বের হয়ে পাতা খাওয়ার ফলে পাতায় দাগের (রেখাযুক্ত চিহ্ন) সৃষ্টি হয় এবং খাওয়ার স্থানে এটি পরিচালিত হতে থাকে। এই পোকা দিয়ে আসল ক্ষতি হয় কান্ডে, কারন এটি খেতে খেতে কাণ্ডের নিচে চলে যায়। এই পোকার আক্রমনের ফলে কাণ্ড ফুলে ও ফেটে যায়। আক্রমন মারাত্মক হলে গাছটি ঢলে (পতন) পরতে ও মারা যেতে পারে। যদি গাছটি বেঁচে থাকে তাহলে এর বৃদ্ধি এবং ফলন হ্রাস পায়। ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার জন্য এটি অস্থানিক শিকড় (যে মূলগুলি নন-রুট টিস্যু থেকে তৈরি হয়) উৎপাদন করতে পারে। ফলনের ক্ষতির পরিমান ১০০% পর্যন্ত হতে পারে।

শিমের মাছি পোকার জীবনচক্রটি কী?

শিমের মাছি পোকার জীবনচক্রটি কী?

ডিম ফুটে লার্ভা বের হয়ে পাতা খাওয়ার ফলে পাতায় দাগের (রেখাযুক্ত চিহ্ন) সৃষ্টি হয় এবং খাওয়ার স্থানে এটি পরিচালিত হতে থাকে। এই পোকা দিয়ে আসল ক্ষতি হয় কান্ডে, কারন এটি খেতে খেতে কাণ্ডের নিচে চলে যায়। এই পোকার আক্রমনের ফলে কাণ্ড ফুলে ও ফেটে যায়। আক্রমন মারাত্মক হলে গাছটি ঢলে (পতন) পরতে ও মারা যেতে পারে। যদি গাছটি বেঁচে থাকে তাহলে এর বৃদ্ধি এবং ফলন হ্রাস পায়। ক্ষতি পুষিয়ে নেওয়ার জন্য এটি অস্থানিক শিকড় (যে মূলগুলি নন-রুট টিস্যু থেকে তৈরি হয়) উৎপাদন করতে পারে। ফলনের ক্ষতির পরিমান ১০০% পর্যন্ত হতে পারে।

O. phaseoli প্রজাতী ডিমগুলি পাতার উপর বা নিচের অংশে পারে, প্রায়শই মধ্যশিরার কাছাকাছি পাতার বৃন্তের (ডাঁটা) কাছে। এটি তার জীবনে গড়ে ১০০টি ডিম দেয়। এগুলি সাধারণত ২-৪ দিনের জন্য ডিমে তা দেয়। O. spencerella এবং O. centrosematis প্রজাতী তাদের ডিম হাইপোকোটাইলে (অঙ্কুরোদগমকৃত চারার কাণ্ড) ডিম পারে এবং খুব কমই পাতায় ডিম পারে।

কীড়া বা লার্ভা পাতার এপিডার্মিসের ঠিক নিচে এবং/ বা কাণ্ডে খেতে খেতে টানেল এর মতো তৈরি করে। লার্ভা পর্যায় (তিনটি ধাপ বা ইনস্টার) তাপমাত্রার উপর নির্ভর করে ৮-১০ দিন পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে (O. Centrosematis-এর ক্ষেত্রে ১১ দিন পর্যন্ত)। কাণ্ডে খাওয়ার ফলে তৈরিকৃত টানেলগুলিতে পুত্তলী বা পিউপা গঠিত হয় এবং পিউপেশন সময়কাল পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে ৭-২০ দিন পর্যন্ত হতে পারে। পূর্ণাঙ্গ পোকা বের হওয়ার ২-৩ দিনের মধ্যে এরা প্রজননের উদ্দেশ্যে মিলিত হয়।

পূর্ণাঙ্গ পাতার শেষ পর্যায়ে শিমের মাছি পোকা © CABI

আপনি কীভাবে শিমের মাছি পোকা পর্যবেক্ষণ করবেন?

কৃষককে ফসলের কাণ্ড এবং পাতা পরিদর্শন করে সপ্তাহে দু'বার চারা পর্যবেক্ষণ করতে হবে নিম্নলিখিত নমুনা দেখার জন্যঃ

  • পাতায় ফ্যাকাশে ডিম পাড়ার চিহ্ন
  • কীড়া দ্বারা পাতা, বৃন্ত এবং কান্ডে দাগ বা টানেলিং
  • কান্ড ফোলা এবং ফেটে যাওয়া, বিশেষত গোঁড়ার দিকে
  • কান্ডে পুত্তলী বা পিউপার উপস্থিতি
  • প্রাপ্তবয়স্ক মাছির উপস্থিতি

যখন গাছের সংখ্যা ৫-১০% ক্ষতিগ্রস্থ হয় তখন সরাসরি নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা প্রয়োগ করতে হবে।

আপনি কীভাবে শিমের মাছি পোকা দমন করবেন?

সাধারনত প্রতিরোধ এবং সরাসরি নিয়ন্ত্রণের মাধ্যমে শিমের মাছি পোকা নিয়ন্ত্রণ করা যায়। অ-রাসায়নিক পদ্ধতিগুলির মধ্যে রয়েছে:

  • আগাম রোপণ করা
  • মালচিং
  • সার প্রয়োগ করা
  • নন-হোস্ট ফসলের সাথে শস্য আবর্তন
  • আন্ত-ফসল অন্তর্ভুক্ত করা (ভুট্টার সাথে)
  • অন্যান্য লেগুমিনাস হোস্ট ফসলের কাছাকাছি রোপণ করা এড়ানো
  • আগাছা এবং স্বেচ্ছাসেবক উদ্ভিদ অপসারণ
  • ফসলের অবশিষ্টাংশ এবং সিমের মাছি পোকা দ্বারা আক্রান্ত গাছ সরিয়ে ফেলা এবং ধ্বংস করা
  • বেড়ে ওঠার ২-৩ সপ্তাহের মধ্যে শিকড়কে চারপাশের মাটি দিয়ে ঢেকে/উচু করে দেওয়া (বেধে দেওয়া)
  • প্রতিরোধী জাত ব্যবহার করা
  • প্রাপ্তবয়স্ক মাছির জন্য আঠালো ফাঁদ ব্যবহার করা

সরাসরি জৈবিক নিয়ন্ত্রণ পদ্দতিগুলোও সহজলভ্য। আরো তথ্যের জন্য দেখুন: www.bioprotectionportal.com

সরাসরি দমনের ক্ষেত্রে প্রচলিত রাসায়নিকগুলি (সিস্টেমিক বা প্রবাহ) অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। প্রাপ্যতার জন্য স্থানীয় কীটনাশক এর তালিকা পরীক্ষা করুন।

শিমের মাছি পোকা, বিস্তার, জীবনচক্র এবং নিয়ন্ত্রণ সম্পর্কে আরো তথ্য পাওয়া যাবে এখানে Plantwise Knowledge Bank, Infonet biovision, Plantix, Business Queensland এবং Nkhata et al. (2018) এর একটি সম্প্রতি রিভিউ-এ।

সয়াবিনের পাতায় শিমের মাছি পোকার লার্ভা © CABI